যন্ত্রণার আইবিএস কিভাবে চিনবেন এবং কী করণীয়?
যন্ত্রণার আইবিএস কিভাবে চিনবেন এবং কী করণীয়?
ক্যাটাগরি: ডাক্তার পরামর্শ , নারীর স্বাস্থ্য , স্বাস্থ্য-সেবা , স্বাস্থ্য সংবাদ , হেলথ টিপস
লিখেছেন : Md. Emran Hossain ২৭ দিন ১১ ঘন্টা ৪ মিনিট আগে ৭৯
খাবার খাওয়া হলো, কিছুক্ষণের মধ্যেই পেট মোচড়াচ্ছে। বাথরুমে যেতেই হবে। বাথরুম গিয়ে আসার পর আরাম লাগলেও,পরবর্তীতে কোনো একটা খাবার খাওয়ার পর আবারও একই অবস্থা। কোনো কাজই যেন করা যায় না শুধু বাথরুমেই যাওয়া আসা করা লাগে। মল ত্যাগের পর যেন পেট পরিষ্কার মনে হয়না, পেটে গ্যাস জমা মনে হয়।

দীর্ঘ মেয়াদে এ ভোগান্তি চলছেই!
এমনটি অধিকাংশ ক্ষেত্রে, IBS রোগীদের হয়ে থাকে।

IBS (Irritable Bowel Syndrome) একটি অতিপরিচিত সমস্যা যা 
ডাইজেস্টিভ সিস্টেমকে প্রভাবিত করে।

কিভাবে বুঝবেন আপনি IBS রোগে আক্রান্ত?

➡খাওয়ার পর পরই পেট ব্যাথা হয়ে মলত্যাগের বেগ আসা।
➡ পেট ফাঁপা ভাব থাকা।
➡ডায়রিয়া কিংবা কোষ্ঠকাঠিন্য কিংবা উভয় সমস্যা হওয়া। 
➡ঘন ঘন বায়ু নির্গমন করা।
➡মলের সাথে পিচ্ছিল জাতীয় পদার্থ-মিউকাস যাওয়া।

IBS কেন হয়?

সুনির্দিষ্ট কোনো কারন নেই, তবে নিচের সমস্যাসমুহের জন্য আইবিএস হতে পারে-

➡ডাইজেস্টিভ সিস্টেমে গুড ব্যাক্টেরিয়া সংখ্যায় কমে যাওয়া।
➡দীর্ঘদিনের ডিপ্রেশন। 
➡অনিয়মিত খাবার গ্রহণ। 
➡স্ট্রেসফুল জীবনযাপন। 

মেডিকেল সাইন্সে IBS রোগের চিকিৎসা এখনও আবিষ্কার হয়নি। তাই বিশেষজ্ঞগণ IBS কে নিয়ন্ত্রণ করতে অভ্যাস এবং খাদ্যতালিকার পরিবর্তনকে প্রাধান্য দিয়েছেন। খাদ্যতালিকায় পরিবর্তনের জন্য ডায়টেশিয়ানের শরণাপন্ন হওয়া প্রয়োজন। পাশাপাশি অভ্যাস পরিবর্তনে কিছু করণীয় এবং বর্জনীয় রয়েছে। 

করণীয়ঃ

🔅ঘরে তৈরি,কম তেলে রান্না করা খাবার গ্রহণ
🔅চিন্তামুক্ত জীবনযাপন 
🔅ব্যায়াম করা
🔅পর্যাপ্ত ঘুমানো
🔅খাবার দীর্ঘসময় নিয়ে চিবিয়ে খাওয়া

বর্জনীয়ঃ

❌তেল ও মশলাযুক্ত খাবার
❌অ্যালকোহল, সফট ড্রিংকস
❌অনিয়মিত খাবার গ্রহণ 

আইবিএস এর অস্থিরতা কাটাতে কিছু টিপস-

পেট ফাঁপা,পেট ব্যাথা ও ঘন ঘন বায়ু নির্গমন হলে-
✅আঁশজাতীয় খাবার খাওয়া।
✅হজমে বেশি সময় নেয় এমন খাবার যেমন-ফুলকপি, বাঁধাকপি ইত্যাদি এড়িয়ে চলা। 
✅Papermint oil কিংবা পুদিনা পাতা খাওয়া।

ডায়রিয়া হলে-
✅হাই ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার যেমন-লাল চালের ভাত, লাল আটার রুটি,লাল চিড়া ইত্যাদি খাওয়া।
✅কেক, পেস্ট্রি জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলা। 
✅প্রোবায়টিক, যেমন-দই কিংবা প্রিবায়োটিক, যেমন-কলা খাওয়া।

কোষ্টকাঠিন্য হলে-
✅পর্যাপ্ত পরিমাণে (৭-৮গ্লাস) পানি পান।
✅ডাল, গাজর ইত্যাদি ফাইব্রাস খাবার খাওয়া।
✅সকালে খালি পেটে ইসুবগুলের ভুসি খাওয়া।

IBS একটি কষ্টদায়ক রোগ তবে এটি মরণব্যাধি নয়।সুনির্দিষ্ট  চিকিৎসা না থাকলেও খাবারের মাধ্যমে আইবিএস নিয়ন্ত্রণ সম্ভব। তাই আইবিএস হলে হতাশাগ্রস্থ না হয়ে সুন্দর জীবনে ফিরে পেতে একজন ডায়েটিশিয়ানের সাহায্য নিন।
আপনার জন্য নির্বাচিত
কেন পা কামড়ায়? যা করবেন লিখেছেন : Zulfikar Bin Hossain
১ বছর ৯ মাস ১১ দিন ১১ ঘন্টা ৫২ মিনিট আগে ৩৩৮১৯
কালোজিরা খাওয়ার নিয়ম ও এর উপকারিতা লিখেছেন : Zulfikar Bin Hossain
১ বছর ৮ মাস ২৭ দিন ১৯ ঘন্টা ৩৪ মিনিট আগে ৩১৮৯৯
রক্ত ও রক্তের উপাদান লিখেছেন : AS Tushar
২ বছর ১ মাস ২৫ দিন ১২ ঘন্টা ৩৬ মিনিট আগে ১৬২৩৭